Samokal Potrika

।।দেহতত্ত্ব।। 

 

শরীর পুড়ে যাচ্ছে

বরফ ঠাণ্ডা জলে

শেষ রাতের  গাঢ় নীল ভালবাসার

দাগ ভ্রু পল্লবে

শিরায় শিরায় আজ বসন্ত উৎসব

কী করে বোঝাই!  

তোমার প্রেমে

আমি এখন জলজ্যান্ত শব।

 

 

।।ছাপ।। 

 

ব্যালকোনিতে ঝুলে আছে

অভিমানী মেঘ; ভবঘুরে

বাতাস শিস দেয় মিঁয়ামল্লারে

পড়ার ঘরে সারাদিন বৃষ্টি হলো 

তুমি চলে যাবার পর 

দেওয়ালের গায়ে প্রেমের ছাপ

বিরহে থৈ থৈ ঘর...

 

।।রাধা।।

 

সবাইকে শত্রু মনে হয়

কারও কথা গরম শিসার চেয়ে উত্তপ্ত

কলংক সহবাসে তোমার

বুকের গন্ধ  যত্রতত্র 

রাত নামলে ধিক ধিক জ্বলে ব্যথা 

ফিসফিসিয়ে কেউ বলে,

" রাধার কি হৈল অন্তরে ব্যথা।

বসিয়া বিরলে থাকয়ে একলে

না শুনে কাহারো কথা..."

 

 

।। বিলাপ।।

 

আলসেমির দুপুর গড়ায় চিলেকোঠায়

কবিতা  ছুঁয়ে ইচ্ছেরা তীব্র

যৌবন পায় ; নাতিশীতোষ্ণ ভালবাসাই

বেশি পছন্দ  নীল নির্জনে। 

আমি আজন্ম প্রেমিক

সারা রাত নদীর গভীরে শুয়ে থাকব

কোনও তাড়া নেই

আমার স্বামী হবার কোনও মাথাব্যথা নেই!