Samokal Potrika

দুইপাশে গ্রাম দুইখানি
     পরস্পরে নীরবে চাহিয়া।
মাঝে ছোট নদী এক,
     কালান্তর যায় বহিয়া।

মাঝি খেয়া করে পার
    কিছু উপার্জনের আশায়।
তারাই সকলের পথ-প্রদর্শক
    জেগে থাকে পাহারায়।

সারাদিন ডিঙি বায়,
     জেলে মাঝি ধরে মাছ।
ডুবন্ত রবির ম্লান আলোয়,
     গ্রাম্য বালিকারা করে নাচ।

কলসি কাঁখে জল আনিতে
    বধূরা সবে মিলি নদীতটে।
রাখাল বালক আসে ফিরে
    গরুদল ছিল যত মাঠে।

সন্ধ্যাবেলা বিজলির আলো
    শুধু মিটিমিটি চায়।
অতীত দিনের কত ইতিহাস
    সাক্ষী হয়ে রয়।

এপারের লোক যায় ওপারে
    কেনাবেচা করে একসাথে।
ওপারের লোক এপারে আসে
     নিত্য সেথা মিলন হাটে।

তবু গ্রাম দুটি কথা নাহি কয়,
   চুপিসারে দিন গুনে যায়।
নিশীথ বেলা প্রহর গোনে
    আঁধারে ক্লান্তি ঘোচায়।