আমি এবার রাইগে বলেছিলম তুই চুপ কর কেনে!
তোর ইসব কথা শুনা নাই লাইগবে।
তারপর আবার খুশ মেজাজে বলেছিলম দাঁড়া দেখতে পাবি ভোটের দিন

" />

Samokal Potrika

ফেলাগ আর ফেলাগ
কত্ত রকমের ফেলাগ লাল,গেরুয়া,সবুজ 
আমার বিটি একদিন দৌড়ে আইসে বল্লেক
"বাবা ওই পতাকা গুলো লাগাইছে সেগুলা কিসের লাগে?"
আমি হাসে বলেছিলম "সামনে ভোট রে বিটি"
আমার বিটি আবার প্রশ্ন করছিলো"ই ভোট আবার কুন জিনিস বাপ"
ছোট মানুষ ত প্রশ্ন করেই যায় বিটিটা।
আবার বৈললো ভোট কিসের লাগে হয় বাপ?
আমি তার পিট চাপরাই বলেছিলম উন্নয়ন হবেক রে!
"বাপ বাপ উন্নয়ন কি বঠি?"
আমি এবার রাইগে বলেছিলম তুই চুপ কর কেনে!
তোর ইসব কথা শুনা নাই লাইগবে।
তারপর আবার খুশ মেজাজে বলেছিলম দাঁড়া দেখতে পাবি ভোটের দিন
সেই কথা শুনে আমার বিটি খুবেই খুশি
সে ভোট দ্যাখবে সে দেশের উন্নয়ন দ্যাখবে!
আমি মজুর খাটা মানুষ,
রাজনীতি বুজে আর কাজ লাই 
আমার তো তেমন ভোট দিতে যাওয়ার সাধ ছিল নাই
কিন্তক পার্টির বড় লেতাদের উন্নয়নের কথা শুনে ইচ্ছা জাগেছিল
শুধু আমি লই উন্নয়নের তোড়ে ভাসে গেছিলো পাড়ার লোকে সবায়।
কিন্তু কে বা জানেছিলো যে এই উন্নয়ন যে বিষের থেকেও বিষাক্ত 
ভোটের দিন সকালে আমার বিটি জোড় করেই বইসলেক
সেও নাকি ভোটে দ্যাখতে যাবে!
ভোটের দিন বেড়াই পড়েছিলম দু-মা বিটি আর  আমি
যাওয়ার সময় দিখি উন্নয়ন রাস্তায় মুখ বাধেঁ কতরকম  অস্ত্র লিয়ে দাঁড়াইন আছে।
কিন্তু ভয় পাইনাই
শেষে ভোটের লাইনে দাঁড়াইন পরি তিনজনেই।
তারপর যেন হঠাৎ উন্নয়নের হুজুগ আসে পড়লো
একঘড়িকে
বলা নাই কয়া নাই কুত্থেকে একদল মানুষ আসে শুরু করলো ফায়ার
চাইরদিক থেকে উন্নয়নের গোলা-বারুদ আসে তীরের মত
কে কুথায় সব দৌড়াতে লাগল
আমার বউ আর বিটি গেলো হাইরে।
তারপর যখন থামলো হুজুগ 
দেখি ইসকুল মাঠে দুখান উন্নয়নের লাশ পরে আছে ।
দৌড়ে গেলাম আমার বিটি আর বউয়ের লাশের কাছে,
বিটি আর বউ চোখ মেলে তাকাই আছে, আমাকেই ঠাওর করছে তাদের চোখ
দুজনকেই কোলে বসিয়ে কাঁদছি আর বলেছি
দেখলি রে বিটি উন্নয়ন কি?
"বিটি ও বিটি ,ও কলির মা দেখও উন্নয়ন কি দেখও।"