Samokal Potrika

লটারি জিতেছে ‘বড়’আমাদের কেষ্টা

হৃদয় করবে ফেল যদি শোনে ‘কেস’ টা। 

মরে যাবে বেচারাটা যদি শোনে সংবাদ 

বেঘোরে হারাবে প্রান লোকে দেবে অপবাদ। 

সভা আর সমিতিতে পাড়ার মাতব্বর 

ঠিক হ’লো ডাক্তার দেবে তাকে এ খবর।

এত বড় ধাক্কা সামলানো জলভাত 

ডাক্তার আছে এক যদি পড়ে তার হাত।

নরেন চললো সোজা কেষ্টার বাড়িতে 

দুবেলা দুমুঠো নেই কেষ্টার হাঁড়িতে।

ভেবে ভেবে বিস্তর দিন থেকে রাত্রি 

একলাই যেতে হবে নাই সহযাত্রী। 

কি করে করবে শুরু এই শুধু চিন্তা 

বাড়িতে আছে কি বাবু নাকি গেছে নিমতা।

ক্রোশ দুই হেঁটে ছুটে পৌঁছুলো বাড়িতে 

দেখলো কেষ্টা শুয়ে খেজুরের পাটিতে। 

এলাম কৃষ্ণবাবু আছেন তো বিন্দাস 

এবারে মিটিয়ে নিন জীবনের যত আশ।

ধরুন লক্ষ টাকা চলে এলো পকেটে 

ভেবে নিন কি কি কাজ করবেন ছক এঁটে। 

ভাবিনি তো এত টাকা নিয়ে কি কি করবো

ভাত খাবো মাছ দিয়ে,জামা ধুতি পরবো।

 

যদি আসে দশ লাখ কি কি কাজ করবেন 

ভাবুন তো একবার কার মন ভরবেন।

সোনা কিছু কিনে দেবো টেঁপিটার মা টাকে

টেঁপিটার বিয়ে দেবো ভালোবাসে যে তাকে। 

পঞ্চাশ লাখ যদি দিয়ে দেন ভগবান 

আস্তে বলুন বাবু দেয়ালেরও আছে কান।

পাই যদি পঞ্চাশ মেটাবো মনের আশ

মাঝে মাঝে মনে হয় চাঁদে গিয়ে করি বাস।

সমস্ত ধাক্কাটা নিলো বাবু সামলে

বাঁচবো না আমি আর এর নীচে নামলে। 

যদি পাও এক কোটি লটারির প্রাইজে

তোমাকে দেবই হাফ তুমি মোর ভাই যে।

পায়নিকো জীবনেতে এত বড় ধাক্কা 

পপাত ধরনীতলে পেয়ে গেল অক্কা। 

টেনশন কমানোটা নয় কো সহজ কাজ

নিজের জীবন দিয়ে প্রমাণ করলো আজ।।