Samokal Potrika

বর্ণবোধ বোঝেনা আজ নিভন্ত নিয়তি, 

ব্যাঘ্রচর্ম ছেড়ে তারা লুকিয়েছে অরণ্য আশ্রয়ে। 

প্রতিনিয়ত শাসনের বেড়াজালে শুশুক সময় বৃত্তান্ত খুঁজে ফেরে আপন নৈকট্যে। 

আমাকে তুমি কি নিয়ে যাবে চন্দনের বনে,

যেখানে অমাচাঁদ ফিকে হয়ে শুনে যায় 

ভাসানের গান!

 

ভাটিয়ালি মাঝি গুণটানা নৌকায় দেহ রাখে নিত্যকার অভাবী শাসনে,

তুমি কি আমায় নিয়ে যাবে অহল্যা যেখানে থাকে সেই ইন্দ্রালয়ে!!

এখনো যারা শোনেনি অর্জুনের গাণ্ডিব টঙ্কার, তারা যেন ফিরে যায় ঘরে। 

 

সামনে বিছানো মৃতদেহ এখন দাঁড়িয়ে সটান,

লাখখানেক ডুবুরির চোখ শ্যেনদৃষ্টি নিয়ে ভয় কেটে গেছে বলে-

তারা আজ সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে শ্মশানে। 

অবিশ্বাসী মানুষের চারদিক ঘিরে আছে বয়স্ক শকুনির দল,

অবিকল ছিঁড়ে খাবে রাতারাতি বৈকুন্ঠবিলাপে।

 

বর্ণবোধ বোঝেনা যারা তারা আজ সন্ন্যাসের দিকে হেটে যাচ্ছে আপন প্রত্যয়ে, 

ধনুকের তূণ বেঁধে সোহাগ করেছে নারী দিগন্ত বলয়ে,

আমাকে কি নিয়ে যাবে তুমি চন্দনের অরণ্য আশ্রয়ে!!