Samokal Potrika

প্রিয়,

আকাশ ভেঙে ঝিঝি ডাক দুপুর এলে, সোনাবিলে চুম্বন মাখে আধপোড়া চাঁদ। আমি বায়ু রঙ ফসিলে প্রশ্ন করি, আমার প্রিয়কে তুমি চেনো? সাতনরী সাজলাজে আনখ বিজনবালা ফ্যালফ্যাল চেয়ে থাকে প্রেমিক সূর্যের চোখ। রাধা বা বিষ্ণুপ্রিয়া কতজন্ম সমুদ্রগরল শুষে অভিশাপগ্রস্ত প্রিয়? আমার পথদ্বারে কণ্টকিত মেধাবিনী ব্যঙ্গ করে, আমি নাকি জলজ আশাবরি! কেউ তো দিব্যি দেয়নি তোমাকে দিকশুন্যপুরের নাবিক জেনে আমার পরিযায়ী হতে

জানো প্রিয়, রোদ আমায় নিয়ে স্বপ্ন দ্যাখে এস্কিমোদের ডেরায় আগুন হতে। আমি মাটিকে ছুঁয়ে আদর প্রাণা হলে সহস্র গোলাপ পাপড়ি মেলে উড়ে যায়। অলিকুঞ্জে রানীর হিংসা স্বাদহীন করে মধু। আমি দু চোখের মাঝখান লুকিয়ে রাখি আহ্নিকগতি। ভ্রমর কোইও গিয়া বলে গেয়ে ওঠে রুদ্রবীণা। যুদ্ধ যুদ্ধ ভালোবাসা আনত হয়, শুধু তুমিই আজও হামলাকারি জল্লাদ থেকে গেছো প্রিয়। পারলে মানুষ হয়ে ঝিঝি ডাকা দুপুর দিও আমার যৌবনে।

অপেক্ষায় তোমার

নন্দা